অধূমপায়ীদের কি ফুসফুসের ক্যানসার হয়?

936

ধূমপান ফুসফুসের ক্যানসারের একটি অন্যতম ও প্রধান কারণ। যাঁরা দৈনিক ২ থেকে ৩ প্যাকেট সিগারেট সেবন করেন বা ২০-৩০ বছর ধরে ধূমপান করেন, তাঁদের মধ্যে ৯০ শতাংশ ব্যক্তিরই ফুসফুসের ক্যানসারের ঝুঁকি থাকে। তাই বলে যাঁরা ধূমপান করেন না, তাঁরা কি একেবারেই নিরাপদে থাকেন? অধূমপায়ীদেরও ফুসফুসের ক্যানসার হতে পারে। এমনকি নারীরাও এই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। তাই ধূমপান করেন না বলে কিছু উপসর্গকে অবহেলা করবেন, তা হয় না।

* পরিবেশের ও কর্মক্ষেত্রের নানা দূষণ, গাড়ির ধোঁয়া ফুসফুসের ক্যানসারের কারণ হতে পারে। তাই কাঠ বা কয়লা পোড়ানোর ধোঁয়া বা যানবাহনের ধোঁয়া থেকে নিজেকে রক্ষা করুন। শিল্পকারখানায় কাজ করার সময় মাস্ক ব্যবহার করা ভালো।

* নারী ও অধূমপায়ীদের ভিন্ন ধরনের ক্যানসার হয়ে থাকে। পরোক্ষ ধূমপানও অন্যদের ক্যানসারের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

* বেশ কিছুদিনের কাশি, কাশির সঙ্গে রক্তপাত, জ্বর, ওজন হ্রাস ইত্যাদি ফুসফুসের ক্যানসারের পরিচিত লক্ষণ। তবে কিছু অপরিচিত উপসর্গ নিয়েও ফুসফুসের ক্যানসার দেখা দিতে পারে। যেমন-গলার স্বর পরিবর্তন। ধূমপায়ী বা ব্রংকাইটিসের রোগীর সাধারণ কাশির ধরন পরিবর্তন। বুকে বা কাঁধে ব্যথা। ৫০ শতাংশ রোগী বুক বা কাঁধের ব্যথা নিয়েই কেবল চিকিৎসকের দ্বারস্থ হতে পারেন। ঘন ঘন নিউমোনিয়া বা ফুসফুসের সংক্রমণ হতে পারে একটি লক্ষণ।

* খুসখুসে কাশি বা শ্বাসকষ্টও এর লক্ষণ হতে পারে। অনেক সময় আমরা এগুলোকে অ্যালার্জি বা হাঁপানি ভেবে অবহেলা করি।

* দেহের অন্য কোনো অঙ্গের ক্যানসার ছড়িয়ে পড়ে ফুসফুসে বাসা বাঁধতে পারে। ব্রেস্ট, কোলন, প্রোস্টেট ক্যানসার ফুসফুসে বেশি ছড়ায়। এ ধরনের রোগের ইতিহাস থাকলে ফুসফুসজনিত কোনো উপসর্গকেই অবহেলা করা যাবে না।

ডা. মো. আজিজুর রহমান, বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ